BANNER

Late Autumn Session-2016

 

Late Autumn Session of Lakshyapar

The Late Autumn Session of Lakshyapar Classical Music Conference was held recently in Narayanganj. This is for the 4th time that the reputed private initiative library named Sudhijan Pathagar hosted the programme in its reading hall.

The three artiste soiree began in the evening of 11 November Friday at 7’O clock with a very healthy audience of about 200 persons who were heartily welcomed by the Chief Executive of the library Mr. Imtiaz Faruq Moin and the Chief Advisor of Lakshyapar Mr. Kashem Jamal.

The performances began then with promising flautist Mrityunjay Das who showed signs of growing maturity in his portrayal of raag Durga which is a very serene evening raag. Mrityunjay Das finished his part with a short kirtan as requested by the audience.

The next item was a lecture demonstration on “The Transformation of Bandish from Kheyal to Semi-classical Forms”. Biplab Mukherjee successfully handled the part with Rupayan Chakraborty in Tabla.

The last artiste was Sarodiya Arnab Bhattacharya. He took raag Jhinjhoti and proceeded gradually through aalap, jorh, jhaala in the first part and then in the next part went into a grand low-tempo composition and wrapped it with a sparkling fast composition. Sabuj Ahmed accompanied in Tabla.

In the concluding part Lakshyapar coordinator Asit Kumar thanked local and foreign artistes, the audience and library authority for their response and consistent support. The programme ended with the declaration from Mr. Kumar that the 8th Annual Classical Music Conference of Lakshyapar would be held in January 2017.

গত ১১ নভেম্বর শুক্রবার সন্ধ্যায় ‘লক্ষ্যপার’ আয়োজিত হেমন্তকালীন শাস্ত্রীয় সংগীত সন্ধ্যা অনুষ্ঠিত হলো নারায়ণগঞ্জের সুধীজন পাঠাগারে। তিনজন শিল্পীর পরিবেশনায় সাজানো এই অনুষ্ঠানটি উপভোগ করেন দুই শতাধিক শ্রোতা। অনুষ্ঠানের শুরুতে আগত শ্রোতাদের স্বাগত জানান পাঠাগার পরিচালনা কমিটির কর্মাধ্যক্ষ ইমতিয়াজ ফারুক মঈন এবং লক্ষ্যাপরের প্রধান উপদেষ্টা কাসেম জামাল। প্রথম পরিবেশনা ছিল বাঁশি বাদন। শিল্পী মৃত্যুঞ্জয় দাস দুর্গা রাগের স্বর-বিস্তারে ভরিয়ে তোলেন হেমন্ত সন্ধ্যার এই আসরকে। পরে দর্শকদের অনুরোধে কীর্ত্তণের সুর বাজিয়ে শোনান। দ্বিতীয় পর্বে ছিল লেকচার ডেমনস্ট্রেশন। “খেয়ালের বন্দিশ থেকে বন্দিশী গানের রূপান্তর” শীর্ষক এই সুর-কথন পর্বটি অত্যন্ত দক্ষতার সাথে উপস্থাপন করেন শিল্পী বিপ্লব মুখার্জী। তার সাথে তবলায় সংগত করেন রূপায়ন চক্রবর্তী এবং তানপুরায় ইকবাল সুমন। সবশেষে মঞ্চে আসেন অর্ণব ভট্টাচার্য। তিনি তার সরোদ যন্ত্রে ঝিঁঝিট রাগ পরিবেশন করেন। তবলায় সংগত করেন সবুজ আহমেদ। আসছে পৌষের মাঝামাঝি সময়ে ‘লক্ষ্যাপার’ এর অষ্টম বার্ষিক শাস্ত্রীয় সংগীত সম্মিলনের সম্ভাবনার কথা জানিয়ে এবং শ্রোতা শিল্পী ও সুধীজন পাঠাগার কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানিয়ে অনুষ্ঠান শেষ করেন লক্ষ্যাপার সমন্বায়ক অসিত কুমার।



There are no comments

Add yours